শতভাগ বিদ্যুতায়নের আওতায় আসছে ভোলা সদর উপজেলা  

    বাসস
    প্রকাশিত: জুন ৩০, ২০১৮ শনিবার ০৪:১৬ পিএম BdST     ক্যাটাগরি: বিদ্যুৎ

ভোলা সদর উপজেলা আগামী সেপ্টেম্বরের মধ্যে শতভাগ বিদ্যুতায়নের আওতায় আনা হচ্ছে। ১৮১ কোটি টাকা ব্যয়ে শতভাগ বিদ্যুতায়নের কার্যক্রম ৯০ ভাগ সম্পন্ন হয়েছে।

এ উপজেলায় প্রত্যেক ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ পৌঁছে দিতে ৫০ হাজার ৩৫৫ জন গ্রাহকের মাঝে ১ হাজার ২৪৫ কিলোমিটার বিদ্যুৎ লাইন স্থাপন করা হয়েছে। আর প্রয়োজন রয়েছে ৬৪ কিলোমিটার বিদ্যুৎ লাইনের।

‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উদ্যোগ, ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ’ স্লোগানকে সামনে রেখে ইতোমধ্যে জেলার দৌলতখান উপজেলাকে শতভাগ বিদ্যুতের আওতায় আনা হয়েছে। আর জুনের মধ্যে প্রত্যেক ঘরে বিদ্যুৎ পাবে তজুমুদ্দিন উপজেলা। এছাড়া চলতি বছরের মধ্যে জেলাকে শতভাগ বিদ্যুৎ সুবিধা দেওয়া হবে।

পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির জেনারেল ম্যানেজ্যার (জিএম) মোঃ কেফায়েতউল্লাহ্ বলেন, সমগ্র জেলাকে ২০১৮ সালের মধ্যে শতভাগ বিদ্যুৎ সুবিধার আওতায় আনার লক্ষ্যে মহাপরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে। প্রথম উপজেলা হিসেবে দৌলতখানকে গতবছর সম্পূর্ণ আলোকিত করা হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, জুনের মধ্যে হবে তজুমুদ্দিন ও সেপ্টেম্বরের মধ্যে সদর উপজেলায় শতভাগ বিদ্যুৎ সুবিধার মধ্যে আনা হবে। এতে করে মানুষের কর্মসংস্থান সৃষ্টির মাধ্যমে মাথাপিছু আয় বৃদ্ধি পাবে, শিক্ষার মান বাড়বে, অভাব দূর হবে।

সমিতির সহকারী জেনারেল ম্যানেজ্যার (এজিএম) মোঃ আব্দুল বাসেত বলেন, সদর উপজেলার প্রত্যেক ঘরে বিদ্যুৎ পৌঁছে দিতে ১ হাজার ৩০৯ কিলোমিটার বিদ্যুৎ লাইন প্রয়োজন। আর এতে শতভাগ বিদ্যুতের সুফল ভোগ করবে মোট ৫৫ হাজার ৮৬ জন গ্রাহক।

ইতোমধ্যে পল্লী বিদ্যুতের আবাসিক লাইন দেয়া হয়েছে ৪০ হাজার ২৯০ জন গ্রাহকের মাঝে। বাণিজ্যিক সংযোগ ৪ হাজার ৯৭৮, শিল্প ‍ও কলকারখানার জন্য ২৪৫ এবং স্কুল কলেজ, মসজিদ-মাদ্রাসা ও দাতব্য প্রতিষ্ঠানের জন্য ৪ হাজার ৮৪২টিসহ মোট ৫০ হাজার ৩৫৫টি সংযোগ প্রদান করা হয়েছে। ফলে পল্লী অঞ্চলে ব্যাপক বিদ্যুতায়নের প্রভাবে কমে যাচ্ছে শহর ও গ্রামের বৈষম্য।

 

সম্পাদক: আমিনূর রহমান
@ সর্বস্বত্ব এনার্জিনিউজবিডি ডটকম ২০১৫-২০১৯