ইন্দোনেশিয়া থেকে এলএনজি কিনবে বাংলাদেশ  

    নিউজ ডেস্ক, এনার্জিনিউজবিডি ডটকম
    প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ১৬, ২০১৭ শনিবার ১১:৫১ এএম BdST     ক্যাটাগরি: গ্যাস

বাংলাদেশে উন্নয়ন কার্যক্রম উল্লেখযোগ্য হারে বৃদ্ধি পাওয়ায় দেশে প্রতিনিয়ত জ্বালানি চাহিদা বাড়ছেবলে মনে করেন বিদ্যুৎ, জ্বালানি খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ

তিনি বলেন, শুধু বিদ্যুৎ উৎপাদনেই ২০২০ সালের মধ্যে প্রতিদিন এক হাজার ৭৪১ মিলিয়ন ঘনফুট গ্যাস দরকার হবে। ২০২৫ সালে দুই হাজার ৭০৫ মিলিয়ন ঘনফুট আর ২০২৮ সালে দরকার হবে দুই হাজার ৯০৮ মিলিয়ন ঘনফুট গ্যাসের।

এ জন্য প্রাকৃতিক গ্যাসের অনুসন্ধান ও উত্তোলন বাড়ানোর পাশাপাশি তরলায়িত প্রাকৃতিক গ্যাস (এলএনজি) আমদানির কাজ চলছে বলে মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।

গত ১৫ সেপ্টেম্বর ইন্দোনেশিয়ার রাজধানী জাকার্তায় বাংলাদেশ ও ইন্দোনেশিয়ার মধ্যে জ্বালানি সহযোগিতা চুক্তিকালে প্রতিমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

এ চুক্তির মাধ্যমে বাংলাদেশ ইন্দোনেশিয়ার কোম্পানি পের্টামিনার কাছ থেকে বছরে এক লাখ টন এলএনজি কিনবে। আগামী বছরের মাঝামাঝি থেকে কক্সবাজারের মহেশখালীতে অবস্থিত দেশের প্রথম ভাসমান এলএনজি টার্মিনালে এ গ্যাস সরবরাহ শুরু হবে।

নসরুল বলেন, সম্প্রতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ইন্দোনেশিয়া সফর করেন। এ সময় ইন্দোনেশিয়ার প্রেসিডেন্ট জোকো উইদোদোর সঙ্গে বৈঠককালে দুই দেশের মধ্যে জ্বালানি সহযোগিতার বিষয়ে কথা হয়। এ চুক্তির ফলে ভ্রাতৃপ্রতিম মুসলিম দেশ দুটি জ্বালানি উন্নয়নে কাজ করবে। এলএনজি আমদানি ও এর অবকাঠামো নির্মাণে ইন্দোনেশিয়া বাংলাদেশকে সহযোগিতা করবে।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘বাংলাদেশে প্রায় দুই হাজার ৫০০ শিল্প-কারখানা গ্যাসের জন্য আবেদন করেছে। গ্যাস সংকটের কারণে তাদের সংযোগ দেওয়া যাচ্ছে না। এলএনজি আমদানি শুরু হলে আগামী বছরের মাঝামাঝি থেকে এসব কারখানায় গ্যাস সরবরাহ শুরু করা যাবে।’

প্রতিমন্ত্রী এ সময় আরো বলেন, বাংলাদেশে এখন অতীতের যেকোনো সময়ের চেয়ে বিনিয়োগের ভালো পরিবেশ বিরাজ করছে।

চুক্তিতে বাংলাদেশের পক্ষে প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ ও ইন্দোনেশিয়ার পক্ষে জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রী ইগানাসিয়াস জুনান সই করেন।

চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে ইন্দোনেশিয়ায় নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মেজর জেনারেল আজমল কবির, ইন্দোনেশিয়ার তেল গ্যাস কোম্পানি পের্টামিনার প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মাসা মানিক, পেট্রোবাংলার চেয়ারম্যান আবুল মনসুর মোহাম্মদ ফয়জুল্লাহ ও জ্বালানি বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মো. জাকির হোসেন উপস্থিত ছিলেন।

সম্পাদক: আমিনূর রহমান
@ সর্বস্বত্ব এনার্জিনিউজবিডি ডটকম ২০১৫-২০২০