ঢাকা, রবিবার, ফেব্রুয়ারি ১৮, ২০১৮, ফাল্গুন ৬, ১৪২৪ ০১:০২ পিএম
  
হোম এনার্জি বিডি এনার্জি ওয়ার্ল্ড গ্রীণ এনার্জি মতামত সাক্ষাৎকার পরিবেশ বিজনেস অন্যান্য আর্কাইভ
সর্বশেষ >
English Version
   
অন্যান্য
‘আগামী ১৩ মার্চ এনার্জি রেগুলেটরী কমিশন প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন করবে’
প্রথমবারের মতো আগামী ১২ ও ১৩ মার্চ দুই দিনব্যাপি প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরী কমিশন (বিইআরসি)। কমিশনের চেয়ারম্যান মনোয়ার ইসলাম এনার্জিনিউজবিডি ডটকমকে বলেন, বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতের নিয়ন্ত্রক সংস্থা হিসেবে খুবই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে বিইআরসি। ভোক্তা ও লাইসেন্সিসহ জনগণের মাঝে বিইআরসি’র কার্যক্রম তুলে ধরার জন্যই এই আয়োজন করা হচ্ছে। তিনি বলেন, বিইআরসি’র অনেক অর্জন ও সফলতা আছে। ২০০৩ সালের ১৩ মার্চ বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরী কমিশন আইন পাশ হয়। ওইদিনকে সামনে রেখে এবারই প্রথমবারের মতো বিইআরসি দিবস হিসেবে পালনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। দিবসের তাৎপর্য তুলে ধরার জন্য ১৩ মার্চ প্যান প্যাসিফিক হোটেল সোনারগাঁও এ ‘২০২১ ও ২০৪১ সালে বিইআরসি’র দৃশ্যমান ভূমিকা’ শীর্ষক এক সেমিনারের আয়োজন করা হয়েছে বলে জানান তিনি। ওই সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত, বিশেষ অতিথি হিসেবে প্রধানমন্ত্রীর বিদ্যুৎ ও জ্বালানি বিষয়ক উপদেষ্টা ড. তৌফিক-ই-ইলাহী চৌধুরী, বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মূখ্যসমন্বয়ক (এসডিজি) মোঃ আবুল কালাম আজাদ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিভাগের সচিব নাজিমউদ্দিন চৌধুরী, বিদ্যুৎ বিভাগের সচিব ড. আহমদ কায়কাউস, কনজ্যুমারস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (ক্যাব) সভাপতি গোলাম রহমান ও এফবিসিসিআই এর সভাপতি মোঃ সফিউল ইসলাম (মহিউদ্দিন)উপস্থিত থাকবেন। এছাড়া আলোচক হিসেবে আরো পাঁচজন সেমিনারে বক্তব্য রাখবেন। সেমিনারে স্বাগত বক্তব্য রাখবেন বিইআরসি’র চেয়ার‌ম্যান মনোয়ার ইসলাম, মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করবেন বিইআরসি’র সদস্য (বিদ্যুৎ) মোঃ মিজানুর রহমান এবং ধন্যবাদ জ্ঞাপন করে বক্তব্য রাখবেন বিইআরসি’র সদস্য (গ্যাস) মোঃ আবদুল আজিজ খান। আর প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষ্যে ১২ মার্চ টেলিভিশনে টক শো অনুষ্ঠানেরও আয়োজন করা হয়েছে।
হাইড্রোকার্বন ইউনিট এর অফিস এখন সেগুনবাগিচায়
ফেব্রুয়ারি ১৩, ২০১৮ মঙ্গলবার ০৭:০২ এএম - নিউজ ডেস্ক, এনার্জিনিউজবিডি ডটকম
জ্বালানী ও খনিজ সম্পদ বিভাগের কারিগরি সহায়তা বিষয়ক সংস্থা হাইড্রোকার্বন ইউনিট এর অফিস সম্প্রতি ঢাকার কারওয়ানবাজার থেকে স্থানান্তর করে সেগুনবাগিচায় নেওয়া হয়েছে। অফিস স্থানান্তর প্রসঙ্গে হাইড্রোকার্বন ইউনিট এর মহাপরিচালক ও সরকারের যুগ্ম-সচিব মো. হারুন-অর-রশিদ খান বলেন, হাইড্রোকার্বন ইউনিট এর প্রধানত দায়িত্ব হলো জ্বালানী ও খনিজ সম্পদ বিভাগকে কারিগরি সহায়তা দেওয়া। সেগুনবাগিচায় অফিস স্থানান্তর করায় যাতাযাতের দূরত্ব কমে গেছে। সংস্থাটিকে আরো যুগোপযোগী করে গড়ে তোলার জন্য বৃহৎ আয়তনের অফিসও দরকার ছিলো। ধীরে ধীরে জনবলও বাড়ছে। সব বিষয় বিবেচনা করেই ১৫৩, পাইওনিয়াররোড, সেগুনবাগিচায় অফিস স্থানান্তরের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। তিনি আরো বলেন, হাইড্রোকার্বন ইউনিট জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিভাগকে তেল, গ্যাস ও খনিজ সম্পদ বিষয়ে কারিগরি সহায়তা ও পরামর্শ প্রদান করে থাকে। এই ইউনিট বিভাগের চাহিদানুযায়ী জাতীয় জ্বালানি নীতি হালনাগাদ ও যুগোপযোগীকরণ, খসড়া কয়লানীতি চূড়ান্তকরণ, গ্যাস চাহিদা, গ্যাস ক্ষেত্র উন্নয়ন, গ্যাস সেক্টরের ভবিষ্যত পরিকল্পনাসহ অন্যান্য নীতিমালা প্রণয়নে সক্রিয় অংশগ্রহণ ও মতামত প্রদান করে আসছে।
ক্যাটাগরি: অন্যান্য
বাংলাদেশ ইনফ্রাস্ট্রাকচার ইনোভেশন অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট এক্সপো শুরু হচ্ছে মার্চ ১
জানুয়ারি ২৮, ২০১৮ রবিবার ০৯:১৯ পিএম - নিউজ ডেস্ক, এনার্জিনিউজবিডি ডটকম
জ্বালানী সাশ্রয়ী মেশিনারী ব্যবহারের প্রয়োজনীয়তা, জ্বালানি দক্ষতা ও পরিবেশ সংরক্ষণ বিষয়ে সচেতনতা বৃদ্ধির জন্য ১ মার্চ থেকে ৯ম আন্তর্জাতিক বাংলাদেশ ইনফ্রাস্ট্রাকচার ইনোভেশন অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট(বিড)এক্সপো অ্যান্ড ডায়ালগ শুরু হবে। টেকসই ও নবায়নযোগ্য জ্বালানি উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (স্রেডা, পাওয়ার সেল ও এক্সপোনেট এক্সিবিশন (প্রাঃ) লিমিটেড এর যৌথ উদ্যোগে চার দিনব্যাপি এই প্রদর্শনী ও সংলাপের পাশাপাশি পরিবেশবান্ধব ও জ্বালানী সাশ্রয়ী শিল্প প্রযুক্তির ব্যবহার বৃদ্ধি এবং টেকসই উন্নয়নের মাধ্যমে সবুজ অর্থনীতি গড়ে তোলার লক্ষ্যে ও শিল্প উদ্যোক্তাদের বিনিয়োগে আগ্রহী করে তুলতে সবুজায়নে অবদানের জন্য বিভিন্ন ব্যক্তি, প্রতিষ্ঠান ও গ্রুপকে সম্মাননা দেয়া হবে। রোববার ঢাকায় স্রেডার অফিসে অনুষ্ঠিত এক সংবাদ সম্মেলনে স্রেডার চেয়ারম্যান ও অতিরিক্ত সচিব মোঃ হেলাল উদ্দিন এ তথ্য জানান। তিনি বলেন, রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে অনুষ্ঠিতব্য বিড এক্সপো অ্যান্ড ডায়ালগ- এমন একটি আন্তর্জাতিক গ্রীণ প্লাটফর্ম যার মাধ্যমে দেশীয় উদ্যোক্তা ও বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের টেকনিক্যাল বিভাগগুলো তাদের সনাতন কারখানাগুলো অতি দ্রুত আধুনিকায়নের জন্য বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের সাথে সরাসরি পরিচিত হতে পারবে। সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত সচিব ও স্রেডা’র সদস্য সিদ্দিক যোবায়ের,  বিআইএফএফএল এর নির্বাহী পরিচালক ও সিইও এস এম ফরমানুল ইসলাম, এক্সপোনেট এক্সিবিশন (প্রাঃ) লিমিটেড এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক রাশেদুল হক, পাওয়ার সেল এর পরিচালক শেখ মুনির আহমেদ, বিড এক্সপো অ্যান্ড ডায়ালগের প্রিন্সিপ্যাল কনসালটেন্ট ও ব্রান্ড অ্যাম্বেসেডর দিলদার আহমেদ তৌফিক, এসআর এশিয়া (বাংলাদেশ)এর কান্ট্রি ডিরেক্টর সুমাইয়া রশিদ,  চ্যাপ্টার ইন্ডিয়ান ফায়ার অ্যান্ড সিকিউরিটি অ্যাসোসিয়েশন এর কো-অডিনেটর সনজিভানী ভিয়াস এবং  এক্সপোনেট এক্সিবিশন এর এক্সিকিউটিভ ভাইস-প্রেসিডেন্ট শাহজাদা খায়রুল কবির।
ক্যাটাগরি: অন্যান্য
পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ডের চেয়ারম্যান পদে আরো তিন বছর চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ পেল মঈনউদ্দিন
জানুয়ারি ১৩, ২০১৮ শনিবার ১১:২০ এএম - নিউজ ডেস্ক, এনার্জিনিউজবিডি ডটকম
অবসরপ্রাপ্ত মেজর জেনারেল মঈনউদ্দিনকে তিন বছরের জন্য  বাংলাদেশ পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ড (বিআরইবি) এর  চেয়ারম্যান হিসেবে চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ দিয়েছে সরকার। গত ১০ জানুয়ারি জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় এক প্রজ্ঞাপনে এই নিয়োগ দেয়। এর আগে ৩১ ডিসেম্বর ২০১৭ বিআরইবি’র চেয়ারম্যান হিসেবে স্বাভাবিক অবসরে যান তিনি। মঈনউদ্দিন ১৯৬১ সালের ২ জানুয়ারী ফেনী জেলার দাগনভুঁঞা উপজেলার খুশিপুর গ্রামের এক মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেক্ট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগে ১৯৮৪ সালে বিএসসি (ইঞ্জিনিয়ারিং) ডিগ্রী লাভ অর্জন করেন এবং বাংলাদেশ সেনাবাহিনীতে যোগ দেন। ১৯৮৪ সালের ২০ ডিসেম্বর লেফটেন্যান্ট হিসেবে কমিশন লাভ করেন। তিনি বাংলাদেশ সেনাবাহিনীতে কমান্ড, স্টাফ এবং প্রশিক্ষক হিসেবে কাজ করেছেন। তিনি মিলিটারী ইনষ্টিটিউট অব সাইন্স অ্যান্ড টেকনোলজি (এমআইএসটি) তে ইলেকট্রিক্যাল, ইলেকট্রনিক অ্যান্ড কমিউনিকেশন ইঞ্জিনিয়ারিং (ইইসিই) বিভাগের প্রধান ছিলেন এবং এমআইএসটিতে ডীন হিসেবেও কাজ করেছেন। মেজর জেনারেল মঈনউদ্দিন ১৯৯৪-৯৫ সালে জাতিসংঘের ইরাক-কুয়েত মিশনে এবং ২০০৫-২০০৬ সালে জাতিসংঘের কঙ্গোতে শান্তিরক্ষা মিশনে কাজ করেন। তিনি ২০১১ সালের ২৫ জুলাই ব্রিগেডিয়ার জেনারেল পদে এবং ২০১৫ সালের ২৯ নভেম্বর মেজর জেনারেল হিসেবে পদোন্নতি লাভ করেন। তিনি  ২০১১ সালের ২৪ অক্টোবর বাংলাদেশ পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ডে চেয়ারম্যান হিসেবে প্রেষণে যোগদান করেন।
ক্যাটাগরি: অন্যান্য
চীনের বৃহত্তম বিদ্যুৎ কোম্পানি এনইপিসি ঢাকায় অফিস খুলেছে
জানুয়ারি ০২, ২০১৮ মঙ্গলবার ০১:০৯ পিএম - বাসস
চীনের অন্যতম বৃহৎ বিদ্যুৎ প্রকৌশল কোম্পানি এনইপিসি আরো বিদ্যুৎ কেন্দ্রের পাশাপাশি বিদ্যুৎ উৎপাদন মেশিনারিজ ও সরঞ্জাম আমদানির মাধ্যমে বাংলাদেশের মার্কেটে প্রবেশের জন্য দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা নিয়ে ঢাকায় অফিস স্থাপন করেছে। এনইপিসি (চায়না এনার্জি-ইঞ্জিনিয়ারিং গ্রুপ নর্থ ইস্ট নো-১ ইলেকট্রিক পাওয়ার কনস্ট্রাকশন কোম্পানি লিমিটেড) চীনের প্রথম একটি বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণকারী কোম্পানি, যেটি বাংলাদেশে তাদের পূর্ণাঙ্গ একটি অফিস স্থাপন করলো। এনইপিসি কোম্পানির ঢাকার শাখা অফিসের নির্বাহী ব্যবস্থাপনা পরিচালক রয় লিও চ্যাংগিং গত ৩০ ডিসেম্বর গুলশানে গ্লাস হাউসে নতুন অফিস উদ্বোধনকালে বলেন, এনইপিসি শিগগিরই এ দেশের মোট বিদ্যুৎ উৎপাদনের এক-চতুর্থাংশ তাদের প্লান্ট থেকে উৎপাদন করবে এজন্য তারা বাংলাদেশে তাদের প্রকল্পগুলোকে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দিচ্ছে। এনইপিসি প্রথমবারের মতো পটুয়াখালীর পায়রা নদীর কাছে পরিবেশবান্ধব ক্লিন কয়লা প্রযুক্তিতে ১,৩২০ মেগাওয়াট কয়লাভিত্তিক তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্র স্থাপন করছে। এটিকে বর্তমান সরকারের গুরুত্বপূর্ণ বিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্র হিসেবে উল্লেখ করে লিও বলেন, এখানে বিপুল বিদ্যুৎ চাহিদা মেটাতে ঢাকা ও বেইজিংয়ের দীর্ঘস্থায়ী বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্কের চেতনার অংশ হিসেবে এনইপিসি বাংলাদেশে তাদের কার্যক্রম সম্প্রসারণের পরিকল্পনা নিয়েছে এনইপিসি। ‘বাংলাদেশের জনগণ ও দেশটির অর্থনৈতিক স্বার্থে চীনের সেরা বিদ্যুৎ উৎপাদন প্রযুক্তি ও সরঞ্জাম বাংলাদেশে নিয়ে আসার প্রচেষ্টা অব্যাহত রাখবো’ এ কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, বাংলাদেশ সরকার এখানে এফডিআই (ফরেন ডিরেক্ট ইনভেস্টমেন্ট) বিষয়ে ইতিবাচক নীতি গ্রহণ করার ফলে চীনের আরো কোম্পানি বাংলাদেশে কার্যক্রম পরিচালনায় আগ্রহ প্রকাশ করেছে। পায়রা মেগা প্রকল্পের পাশাপাশি এনইপিসি আরো ৪টি বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণ করবে। এগুলো হলো- সিরাজগঞ্জে ইউনিট-২ (২২৫ মেগাওয়াট), ইউনিট-৩ (২২৫ মেগাওয়াট), ঘোড়াশাল ইউনিট-৭ (৩০০ থেকে ৪৫০ মেগাওয়াট) এবং ইউনিট-৩ (৪১৬ মেগাওয়াট)। এনইপিসি ইতোমধ্যেই তিনটি বিদ্যুৎ কেন্দ্র স্থাপন করেছে। এগুলো হলো- বিবিয়ানা-২ (৩৪৫ মেগাওয়াট), মেঘনাঘাট (৩৩৭ মেগাওয়াট) এবং সিরাজগঞ্জ ইউনিট-১ (২২৫ মেগাওয়াট)।
ক্যাটাগরি: অন্যান্য
‘বিপিডিবি’র চেয়ারম্যান হিসেবে প্রকৌশলী খালেদ মাহমুদকে চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ’
ডিসেম্বর ৩১, ২০১৭ রবিবার ১১:৫১ এএম - নিউজ ডেস্ক, এনার্জিনিউজবিডি ডটকম
প্রকৌশলী খালেদ মাহমুদকে দুই বছরের জন্য বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড (বিপিডিবি) এর চেয়ারম্যান হিসেবে চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ দিয়েছে সরকার। গত ২২ ডিসেম্বর বিপিডিবি’র চেয়ারম্যান হিসেবে তিনি স্বাভাবিক অবসরে যান। গত ২৬ ডিসেম্বর জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের এক প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, অবসর উত্তর ছুটি বাতিলের শর্তে প্রকৌশলী খালেদ মাহমুদকে গত ২২ ডিসেম্বর ২০১৭ অথবা যোগদানের তারিখ থেকে পরবর্তী দুই বছরের জন্য বিপিডিবি’র চেয়ারম্যান হিসেবে চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ প্রদান করা হলো। খালেদ মাহমুদ ১৯৫৮ সালের ২৩ ডিসেম্বর ময়মনসিংহ জেলায় জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ১৯৮১ সালে বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব ইঞ্জিনিয়ারিং এন্ড টেকনোলজি (বুয়েট) এর তড়িৎকৌশল বিভাগ থেকে বিএসসি ইঞ্জিনিয়ারিং ডিগ্রী অর্জন করেন। খালেদ মাহমুদ ১৯৮১ সালের ১১ আগস্ট সহকারী প্রকৌশলী হিসেবে বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের কার্যক্রম পরিদপ্তরে যোগদান করেন। পরবর্তীতে তিনি উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী নক্সা ও পরিদর্শন পরিদপ্তর-১, উপ-পরিচালক (নির্বাহী প্রকৌশলী) কার্যক্রম পরিদপ্তর, উপ-পরিচালক নক্সা ও পরিদর্শন   পরিদপ্তর-১, সহকারী প্রধান প্রকৌশলী হিসেবে প্রধান প্রকৌশলী উৎপাদন এর দপ্তর, পরিচালক (তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী) নক্সা ও পরিদর্শন পরিদপ্তর-১, প্রধান প্রকৌশলী উৎপাদন এবং সদস্য (উৎপাদন) হিসেবে বিপিডিবিতে দায়িত্ব পালন করেন। খালেদ মাহমুদ ব্যক্তিগত জীবনে বিবাহিত এবং এক পুত্র ও এক কন্যা সন্তানের জনক।
ক্যাটাগরি: অন্যান্য
বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতের সেক্টর লিডারস কর্মশালা শুরু
নভেম্বর ২৪, ২০১৭ শুক্রবার ০৯:৩১ পিএম - স্টাফ করেসপনডেন্ট, এনার্জিনিউজবিডি ডটকম
বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতের সমস্যা, সম্ভাবনা, প্রযুক্তির সাশ্রয়ী ব্যবহার ও অর্থায়ন নিয়ে দুই দিনব্যাপি সেক্টর লিডারস কর্মশালা শুক্রবার থেকে শুরু হয়েছে। ঢাকায় বিদ্যুৎ ভবনে বিদ্যুৎ বিভাগের আয়োজনে এই কর্মশালা শেষ হবে শনিবার। কর্মশালায় চারটি কারিগরী সেশনে আটটি মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করা হবে। এতে ২৫টি মন্ত্রণালয় থেকে ২০০ জন কর্মকর্তা অংশগ্রহণ করছেন। কর্মশালার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী বলেন, বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতের সমস্যা ও সম্ভাবনার পাশাপাশি অর্থায়ন নিয়ে কর্মশালা থেকে গুরুত্বপূর্ণ পরামর্শ পাওয়া যেতে পারে। যা ভবিষ্যতের জন্য কাজে লাগবে। এ ব্যাপারে বাংলাদেশ এনার্জি অ্যান্ড পাওয়ার রিসার্চ কাউন্সিলকে আরো তৎপর হওয়ার আহ্বান জানান তিনি। অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য দেন প্রধানমন্ত্রীর বিদ্যুৎ ও জ্বালানি বিষয়ক উপদেষ্টা তৌফিক-ই-ইলাহী চৌধুরী, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের এসডিজি বিষয়ক মূখ্য সমন্বয়ক মো. আবুল কালাম আজাদ, বিদ্যুৎ বিভাগের সচিব ড. আহমদ কায়কাউস, অতিরিক্ত সচিব মো. মাহবুব-উল-আলম, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিভাগের সচিব নাজিমউদ্দিন চৌধুরী।
ক্যাটাগরি: বিদ্যুৎ
সামিট পাওয়ার লিমিটেডের নতুন উপদেষ্টা হলেন মোস্তফা কামাল
সেপ্টেম্বর ১৬, ২০১৭ শনিবার ১২:৪১ পিএম - নিউজ ডেস্ক, এনার্জিনিউজবিডি ডটকম
দেশের বেসরকারি খাতের সবচেয়ে বড় স্বতন্ত্র বিদ্যুৎ উৎপাদনকারি প্রতিষ্ঠান সামিট পাওয়ার লিমিটেডের উপদেষ্টা হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন মো. মোস্তফা কামাল। যোগদান প্রসঙ্গে তিনি বলেন, “সামিট পাওয়ারের একজন সদস্য হতে পেরে আমি অত্যন্ত আনন্দিত। এই প্রতিষ্ঠানটি দেশের প্রকৌশলীদের উচ্চতর দক্ষ কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি করছে পাশাপাশি বিদ্যুৎ উন্নয়ন খাতে প্রযুক্তি স্থানান্তরের মাধ্যমে আত্মনির্ভরশীলতা অর্জনের দিকে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে।” সামিট পাওয়ারে যোগদানের আগে তিনি ইলেকট্রিসিটি জেনারেশন কোম্পানী অব বাংলাদেশ এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ছিলেন। এছাড়াও তিনি বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের পরিচালক (আইপিপি সেল), প্রধান প্রকৌশলী (উৎপাদন) ও সদস্য (ডিস্ট্রিবিউশন অ্যান্ড জেনারেশন) এবং পাওয়ার সেলের ডিরেক্টর জেনারেল হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেছেন। তিনি বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় থেকে মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগে স্নাতক সম্পন্ন করেন।            
ক্যাটাগরি: অন্যান্য
‘জ্বালানির মূল্য নির্ধারণে দরিদ্র জনগোষ্ঠীর জন্য সরকারের ভুর্তকি দেওয়ার পরামর্শ’
আগস্ট ১৯, ২০১৭ শনিবার ১১:৩৪ পিএম - নিউজ ডেস্ক, এনার্জিনিউজবিডি ডটকম
বাজার মূল্যের ভিত্তিতে জ্বালানির মূল্য নির্ধারণের পরও দরিদ্র জনগোষ্ঠীর জন্য সরকার ভুর্তকি অব্যাহতি রাখবে বলে এক সেমিনারে মত দিয়েছেন বক্তারা। তারা বলেন, তরল গ্যাস আমদানির পর পুরো জ্বালানির দাম বেড়ে যাবে। আগামী ১০ বছরে এই দাম তিনগুণ বাড়াতে হবে। তবে দক্ষতা বাড়িয়ে তা কমিয়ে রাখা সম্ভব। বাজার মূল্যে জ্বালানির দাম ঠিক করলেও দরিদ্র মানুষের জন্য ভর্তূকি দিতে হবে। সাধারণ মানুষের ক্রয়ক্ষমতার মধ্যে দাম না রাখলে পুরো অর্থনীতিতে তার বিরূপ প্রভাব পড়বে। শনিবার ঢাকায় বিদ্যুৎ ভবনে ফোরাম ফর এনার্জি রিপোর্টার্স, বাংলাদেশ (এফইআরবি) আয়োজিত ‘জ্বালানি’র মূল্য এবং জাতীয় অর্থনীতি’ শীর্ষক ওই সেমিনারে বক্তারা একথা বলেন। সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিদ্যুৎ জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বলেন, ২০১৮ সালের মধ্যে শতভাগ মানুষের কাছে বিদ্যুৎ দেয়া হবে। তবে মান সম্মত বিদ্যুৎ দিতে আরো সময় লাগবে। জ্বালানি চাহিদা মেটাতে ভর্তূকি থাকবে। তিনি বলেন, তরল প্রাকৃতিক গ্যাস (এলএনজি) আমদানি করা হচ্ছে। এলএনজিতে ভ্যাট মওকুফ করার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। বিশ্ব পরিস্থিতির কারণে পরিকল্পনায় পরিবর্তন আনতে হয়। আন্তর্জাতিক বাজারে তেলের দাম কমে যাচ্ছে। এলএনজি’র দামও কমে যাচ্ছে। ফলে সেদিকে নজর দিতে হবে। বিকল্প জ্বালানি ব্যবহার করতে হবে। এতে নিরাপত্তা নিশ্চিত থাকবে।  মূল প্রবন্ধে প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের পেট্রোলিয়াম বিভাগের অধ্যাপক ড. ম তামিম বলেন, বাংলাদেশে ভবিষ্যতে জ্বালানির দাম নির্ধারণ কঠিন হবে। অনেক বিষয় জ্বালানির দাম নির্ধারণে প্রভাব ফেলবে। আন্তর্জাতিক বাজার, সরকারের ভর্তূকি, জ্বালানির ব্যবহার, কোন জ্বালানি কতটা ব্যবহার হচ্ছে, দক্ষতার উন্নয়ন ইত্যাদি। ভবিষ্যতে কেমন দাম হবে বা কোন নিয়মে দাম ঠিক করা হবে তা এখনই ঠিক করতে হবে। বিশেষ করে শিল্পখাতের জন্য। ভবিষ্যতে জ্বালানির দাম কেমন হবে তা জানা থাকলে বিনিয়োগে সুবিধা হবে বলে মনে করেন তিনি। ম তামিম বলেন, যে ৫০ কোটি ঘনফুট গ্যাস আমদানির উদ্যোগ নেয়া হয়েছে তা ব্যবহার শুরু হলে আড়াই গুণ গ্যাসের দাম বাড়াতে হবে। আর আগামী ১০ বছরে গ্যাসের দাম তিনগুণ বাড়াতে হবে। তবে ব্যবহার ও সরবরাহ দক্ষতা বাড়িয়ে এই দাম বাড়ানো নিয়ন্ত্রণ সম্ভব। পদ্ধতিগত লোকসান কমাতে হবে। সঞ্চালনে লোকসান কমানো সম্ভব। পল্লী বিদ্যুতে লোকসান সবচেয়ে বেশি। জ্বালানি তেলের চাহিদা কমাতে পরিবহনে পরিবর্তন আনতে হবে। পুরানো পরিবহন পরিবর্তন করতে হবে।  তিনি বলেন, বাজারমূল্যে জ্বালানি সরবরাহ করতে হবে। তবে বাজারমূল্যে দিতে গিয়ে যেন জনগণ সুযোগ থেকে বঞ্চিত না হয় সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। এমনভাবে জ্বালানির মূল্য ঠিক করতে হবে যেন বিকল্প জ্বালানি ব্যবহারে কেউ বঞ্চিত না হয়। বাজার এমন হতে হবে যেন, যার কাছে যেটা সহজ মনে হবে সে সেটা ব্যবহার করতে পারে। পাইপ লাইনের গ্যাসের সাথে এলপিজি’র দাম সমন্বয় করতে হবে। যার যেটা পছন্দ হবে সে সেটা ব্যবহার করবে। তিনি বলেন, কোন অবস্থাতেই জ্বালানির দাম নিয়ন্ত্রণে সরকারের প্রভাব বিস্তার করা উচিত নয়। সব বাজার মূল্যে রাখা উচিত। কোন বিশেষ জ্বালানিকে উৎসাহিত করা উচিত নয়। এক জ্বালানির সাথে অন্য জ্বালানির দাম সমন্বয় করতে হবে। সব জ্বালানির দাম তেলের সাথে সমন্বয় করলে ভাল বলে তিনি তিনি আরো বলেন, দেশের অর্থনীতি, পরিবেশ আর জ্বালানি নিরাপত্তা এই তিনটি বিষয় বিবেচনায় নিয়ে জ্বালানির দাম ঠিক করতে হবে। ভিন্ন ভিন্ন উৎস থেকে জ্বালানি এমনভাবে ব্যবহার করতে হবে যেন বিদ্যুৎ উৎপাদন সব সময় কম খরচে হয়। কারণ বিদ্যুতের দাম সময় সময় প্রাথমিক জ্বালানির দামের উপর নির্ভর করে। অনুমান করা যায়, আগামী কয়েকবছর আন্তর্জাতিক বাজারে তেলের দাম বাড়বে না। সেদিকে খেয়াল রেখে জ্বালানি ব্যবহার করতে হবে। বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশনের সদস্য মিজানুর রহমান বলেন, প্রাথমিক জ্বালানির দাম পরিবর্তন হলে বিদ্যুতের দামও পরিবর্তন হবে। তবে জ্বালানির দাম সব সময় সাধারণ মানুষের ক্রয় ক্ষমতার মধ্যে রাখতে হবে। এজন্য কয়লা ভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্র এবং আমদানির উপর জোর দিতে হবে। এইখাতে কর মওকুফ করে সুবিধা দেয়া যেতে পারে। শিল্পে ভর্তূকি কমিয়ে দরিদ্র জনগোষ্ঠির জন্য দেয়া যেতে পারে। পর্যায়ক্রমে ভর্তুকি তুলে দিতে হবে। বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড এর চেয়ারম্যান খালেদ মাহমুদ বলেন, বিদ্যুৎ উৎপাদনে দক্ষতা বাড়ানোর উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। পুরোনো বিদ্যুৎ কেন্দ্র পর্যায়ক্রমে বন্ধ করে দেয়া হচ্ছে। পাওয়ার সেলের মহাপরিচালক মোহাম্মদ হোসাইন বলেন, সকল মানুষের জন্য জ্বালানি নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে এর দাম নির্ধারণে সরকারের নিয়ন্ত্রণ থাকা দরকার। সরকারের নিয়ন্ত্রণ না থাকলে অনেক মানুষেরই ক্রয় ক্ষমতার বাইরে চলে যাবে। তখন বিশৃংখলা তৈরি হবে। এজন্য ক্ষেত্র বিশেষে জ্বালানির দাম নির্ধারণে সরকারকে নিয়ন্ত্রণ করতে হয়। কনজুমারস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (ক্যাব) এর উপদেষ্টা অধ্যাপক শামসুল আলম বলেন, স্বচ্ছভাবে পরিকল্পনা ও নীতি ঠিক করতে হবে। সব সমস্যার সমাধান শুধু দাম বাড়িয়ে করলে হবে না। বিদ্যুতের দাম পাঁচভাগ বাড়লে জীবনযাত্রার অন্য খরচ আরো ২০ ভাগ বেড়ে যায়।   সেন্টার ফর পলিসি ডায়ালগ (সিপিবি) গবেষণা পরিচালক ড. গোলাম মোয়াজ্জেম বলেন, জ্বালানি ব্যবস্থাপনায় দক্ষতার ঘাটতি আছে। সরকারি প্রকল্পে না দিয়ে অনেক সুবিধা বেসরকারি উদ্যোক্তাদের দেয়া হচ্ছে। বেসরকারি উদ্যোক্তাদের মত সরকারি কেন্দ্রে সুবিধা দিলে উৎপাদন খরচ কমে যেত। বেসরকারি বিদ্যুৎ উৎপাদন মালিকদের সংগঠন বাংলাদেশ ইন্ডিপেন্ডেন্ট পাওয়ার প্রডিউসার অ্যাসোসিয়েশনের সহ-সভাপতি ইমরান করিম বলেন, গ্যাস ব্যবহার না করেও বিল দিতে হচ্ছে। এজন্য শিল্পে যথাযথ মিটার দিতে হবে। দামের সাথে উন্নত জ্বালানি সরবরাহ নিশ্চিত করতে হবে।
ক্যাটাগরি: অন্যান্য
তিতাস গ্যাস এবং গ্যাস ট্রান্সমিশন কোম্পানীর ব্যবস্থাপনা পরিচালক পদের মৌখিক পরীক্ষা সোমবার
জুলাই ১৬, ২০১৭ রবিবার ০৪:৫২ পিএম - স্টাফ করেসপনডেন্ট, এনার্জিনিউজবিডি ডটকম
বাংলাদেশ তৈল, গ্যাস ও খনিজ সম্পদ করপোরেশনের (পেট্রোবাংলা)আওতাধীন তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন অ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেড এবং গ্যাস ট্রান্সমিশন কোম্পানী লিমিটেড এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক পদে চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ পেতে সোমবার ২৪ জন প্রার্থী মৌখিক পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছেন। সম্প্রতি পেট্রোবাংলার মহাব্যবস্থাপক (প্রশাসন) এম এ মাজেদ স্বাক্ষরিত এক নোটিশে প্রার্থীদের মৌখিক পরীক্ষায় অংশ নিতে আহ্বান জানানো হয়। নাম প্রকাশে পেট্রোবাংলার একজন কর্মকর্তা বলেন, এশীয় উন্নয়ন ব্যাংক এর শর্ত মানতে গিয়ে উক্ত দুইটি কোম্পানীতে চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ দেওয়ার জন্য বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়। সে অনুযায়ী আবেদনকারীদের মধ্যে থেকে তিতাস গ্যাস কোম্পানীর জন্য মোট ১৪ জন এবং গ্যাস ট্রান্সমিশন কোম্পানীর জন্য মোট ১০ প্রার্থী মৌখিক পরীক্ষার জন্য বিবেচিত হয়েছেন। মৌখিক পরীক্ষা চলবে পেট্রোবাংলার চতুর্থ তলায় সকাল সাড়ে দশটা থেকে বিকেল সাড়ে পাঁচটা পর্যন্ত। তিতাস গ্যাস কোম্পানীর জন্য আবেদনকারী প্রার্থীদের মধ্যে রয়েছেন- প্রকৌশলী মনজুরুল হক, যাবেদ চৌধুরী, মো. আলী মুনসুর, অবসরপ্রাপ্ত বিগ্রেডিয়ার জেনারেল মো. নুরুল হুদা, প্রকৌশলী মো. মশিহুর রহমান, প্রকৌশলী খোন্দকার মতিউর রহমান, মো. আকলাছুর রহমান, প্রকৌশলী মোহাম্মদ শামসুজ্জামান, অবসরপ্রাপ্ত স্কোয়াড্রন লিডার মো. ফোরকার আলম খান, প্রকৌশলী মো. লুৎফর রহমান, প্রকৌশলী মো. আবদুল ওহাব, প্রকৌশলী মীর মশিউর রহমান, প্রকৌশলী মো. এহসানুল হক পাটওয়ারী এবং মো. আমিনুজ্জামান। আর গ্যাস ট্রান্সমিশন কোম্পানীর জন্য আবেদনকারী প্রার্থীদের মধ্যে রয়েছেন- প্রকৌশলী মো. মাহমুদ খান, এবিএম নাজমুল হাসান, মালিক মো. নিজামুল হাসান শেরীফ, জ্যোতিশ চন্দ্র রায়, মো. আবুল কালাম আজাদ, প্রকৌশলী জামিল আহমেদ আলিম, প্রকৌশলী মো. আতিকুজ্জামান, প্রকৌশলী মো. সানোয়ার হোসেন চৌধুরী, প্রকৌশলী মো. মোস্তাফিজুর রহমান এবং প্রকৌশলী মো. জাফর উল্লাহ হাই।    
ক্যাটাগরি: অন্যান্য
ডিপিডিসি’র নতুন ব্যবস্থাপনা পরিচালক হলেন প্রকৌশলী বিকাশ দেওয়ান
জুন ২২, ২০১৭ বৃহস্পতিবার ১১:৩৯ পিএম - স্টাফ করেসপনডেন্ট, এনার্জিনিউজবিডি ডটকম
প্রকৌশলী বিকাশ দেওয়ান ঢাকা পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানী (ডিপিডিসি) লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন। বৃহস্পতিবার নতুন এই পদে নিয়োগ পাওয়ার আগে তিনি বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড এর প্রধান প্রকৌশলী (প্লানিং অ্যান্ড ডিজাইন) হিসেবে কর্মরত ছিলেন। তিনি সাবেক বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজি, চট্টগ্রাম, সংক্ষেপে বিআইটি, চট্টগ্রাম যা বর্তমানে চট্টগ্রাম ইউনিভার্সিটি অব ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড টেকনোলজি (চুয়েট) থেকে বিএসসি (ইঞ্জিনিয়ারিং) ডিগ্রী অর্জন করেন। বিকাশ ১৯৫৯ সালের ১১ জানুয়ারি রাঙামাটিতে জম্মগ্রহণ করেন।
ক্যাটাগরি: অন্যান্য
ঝিনাইদহে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে ৩ জনের মৃত্যু
জুন ১৭, ২০১৭ শনিবার ১০:৫৩ পিএম - বাসস
ঝিনাইদহ জেলায় শনিবার বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে ৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। সকালে হরিণাকুন্ডু উপজেলার রামনগর গ্রামে ও দুপুরে সদর উপজেলার হুদাপুটিয়া এবং ভুটিয়ারগাতি গ্রামে এ দুর্ঘটনা ঘটে। হরিণাকুন্ডু উপজেলার চাঁদপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান গোলাম মোস্তফা জানান, শনিবার সকালে নিজ বাড়ির গোয়াল ঘরে কাজ করছিল বুলু বিশ্বাস। এসময় বিদ্যুতায়িত হয়ে সে ঘটনাস্থলেই মারা যায়। বুলু বিশ্বাস ওই গ্রামের ছানার উদ্দিন বিশ্বাসের ছেলে। ঝিনাইদহ সদর থানার ওসি এমদাদুল হক শেখ জানান, সদর উপজেলার ভুটিয়ারগাতি গ্রামের কৃষক সুজন হোসেন মাঠে বিদ্যুৎ চালিত মোটরের সুইচ দিতে গিয়ে বিদ্যুতায়িত হয়ে সেখানেই সে মারা যায়। সুজন হোসেন ওই গ্রামের রজব আলী মন্ডলের ছেলে। একই সময় হুদাপুটিয়া গ্রামের কৃষক আবুল কাশেম বাড়িতে কাজ করতে গিয়ে বিদ্যুতায়িত হয়। সেখান থেকে তাকে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। আবুল কাশেম হুদাপুটিয়া গ্রামের আমোদ আলীর ছেলে।
ক্যাটাগরি: অন্যান্য
‘প্রথমবারের মতো ভিডিও কনফারেন্সিং এ বিদ্যুৎ বিভাগের সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত’
মে ২৮, ২০১৭ রবিবার ১১:২৪ পিএম - নিউজ ডেস্ক, এনার্জিনিউজবিডি ডটকম
বিদ্যুৎ বিভাগের সমন্বয় সভা প্রথমবারের মতো ভিডিও কনফারেন্সিং এর মাধ্যমে অনুষ্ঠিত হয়েছে। রোববার ঢাকায় বিদ্যুৎ ভবনে অনুষ্ঠিত ওই সভার উদ্বোধন করে বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বলেন, ভিডিও কনফারেন্সিং এর মাধ্যমে সভা করতে পারলে সময় বাঁচবে। সেই সময় অফিসে অন্য কাজে ব্যয় করা যাবে। প্রতিমন্ত্রী বলেন, আমরা ইআরপি তে যাচ্ছি। ই-ফাইলিং তার প্রথম পদক্ষেপ। ই-ফাইলিং এ প্রতিষ্ঠান সমূহের অগ্রগতি সন্তোষজনক নয়। জুনের মধ্যে পুরোপুরি ই-ফাইলিং-এ যাওয়ার জন্য নির্দেশ দিয়ে বলেন, শুধু আইটি  বিভাগেরই নয়, ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের এ বিষয়ে প্রশিক্ষণ নেয়া প্রয়োজন। তিনি এ সময়, গ্রাহকদের বিদ্যুৎ বিতরণ সংস্থাগুলোর সমস্যা বা লোড শেয়ারিং সংক্রান্ত তথ্য এসএমএসের মাধ্যমে জানানোর নির্দেশ প্রদান করেন। এ ব্যাপারে প্রতিমন্ত্রী জানতে চাইলে ভিডিও কনফারেন্সিং এর অপর প্রান্ত থেকে পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ডের  (আরইবি) চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল মঈন উদ্দিন জানান, বর্তমানে ১ কোটি ৯০ লাখ গ্রাহকের মধ্যে ৭০ লাখ গ্রাহক এসএমএস পায়। আগামী মাসের মধ্যে ৭০% আরইবি’র গ্রাহক এসএমএস পাবে। এছাড়া ডিপিডিসি’র ১০ লাখ ৭২ হাজার গ্রাহকের মধ্যে ৭ লাখ ২৫ হাজার গ্রাহক, বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের ২৫ লাখ গ্রাহকের মধ্যে ৩ লাখ ৭২ হাজার, ওয়েষ্ট জোন পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানির ৯ লাখ ৮৫ হাজার গ্রাহকের মধে প্রায় ২ লাখ, ডেসকোর ৮ লাখ ১৪ হাজার গ্রাহকের মধ্যে ৫ লাখ ৮০ হাজার গ্রাহক এসএমএস পায়। নর্থ-ওয়েষ্ট জোন পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানির ১২ লাখ ৫০ হাজার গ্রাহকেরা এখনো কেউ সেভাবে এসএমএস পাচ্ছে না বলে সভায় জানানো হয়। সমন্বয় সভায় বার্ষিক পারফরম্যান্স এগ্রিমেন্ট, ই-ফাইলিং, এসএমএস-এর মাধ্যমে গ্রাহক সেবা, নতুন বিদ্যুৎ সংযোগ, সিষ্টেম লস, বকেয়া বিদ্যুৎ বিল আদায়, আন্তঃ সংস্থা দেনা-পাওনা, ওভারলোডেড ট্রান্সফরমার, বিদ্যুৎ সাশ্রয়, বিদ্যুৎ সেবা সংক্রান্ত বিষয়ে জনমত যাচাই এবং অডিট আপত্তি ইত্যাদি বিষয় নিয়ে বিশদভাবে আলোচনা করা হয় বলে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে। বিদ্যুৎ বিভাগের সচিব ড. আহমদ কায়কাউস বলেন, চট্টগ্রামে প্রি-পেমেন্ট মিটার দেয়ায় ৫% সিস্টেম লস কমেছে। প্রি-পেমেন্ট মিটার পদ্ধাতি প্রতিটি বিতরণ সংস্থা দ্রুত গতিতে বাস্তবায়ন করতে হবে। বিদ্যুৎ সাশ্রয় কার্যক্রমে জনসংযোগ বাড়াতেও বিতরণ সংস্থালোকে তিনি অনুরোধ করেন।  বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী বলেন, গ্রাহক সন্তষ্টির জন্য আমরা কাজ করছি। সেবা নিয়ে গ্রাহকদের কাছে যান, সমস্যা থাকলে তাদের জানান। এতে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা বৃদ্ধি পাবে, দূর্নীতি কমবে। যা সরকারের অন্যতম লক্ষ্য।নতুন সংযোগ প্রদানে অহেতুক হয়রানি না করার নির্দেশ দিয়ে বলেন, রাজউকের নির্দেশনা অনুসারে আবাসিক ও বাণিজ্যিক সংযোগ দিন। এ সময় তিনি গ্রাহক সন্তষ্টি নিয়ে একটি জরিপ পরিচালনার জন্য পাওয়ার সেলের মহাপরিচালক মোহাম্মদ হোসেনকে নির্দেশ প্রদান করেন। সভায় অন্যান্যের মাঝে বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের চেয়ারম্যান খালেদ মাহমুদ সহ  বিদ্যুৎ বিভাগের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।  
ক্যাটাগরি: অন্যান্য
এনার্জি অ্যান্ড পাওয়ার রিসার্চ কাউন্সিলের নতুন চেয়ারম্যান সাহিন আহমেদ চৌধুরী
মে ২৮, ২০১৭ রবিবার ১০:৪৩ পিএম - স্টাফ করেসপনডেন্ট, এনার্জিনিউজবিডি ডটকম
সরকারের অতিরিক্ত সচিব সাহিন আহমেদ চৌধুরী ভারপ্রাপ্ত সচিবের পদমর্যাদায় বাংলাদেশ এনার্জি অ্যান্ড পাওয়ার রিসার্চ কাউন্সিলের (বিইপিআরসি) চেয়ারম্যান হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন। রোববার জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের এক প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের মহাপরিচালক সাহিনকে বদলিপূর্বক প্রেষণে বিইপিআরসি’র চেয়ারম্যান পদে নিয়োগ করা হলো।
ক্যাটাগরি: অন্যান্য
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের নতুন সচিব হলেন আনোয়ার হোসেন
এপ্রিল ৩০, ২০১৭ রবিবার ১১:২১ পিএম - নিউজ ডেস্ক, এনার্জিনিউজবিডি ডটকম
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মোঃ আনোয়ার হোসেনকে একই মন্ত্রণালয়ে ভারপ্রাপ্ত সচিব হিসেবে নিয়োগ দিয়েছে সরকার। রোববার জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের জারি করা এক প্রজ্ঞাপনে এ তথ্য জানানো হয়। বিসিএস ৮৪ ব্যাচের এই কর্মকর্তা এর আগে বিদ্যুৎ বিভাগে কয়েক বছর কর্মরত ছিলেন।
ক্যাটাগরি: অন্যান্য
বিশ্ব জ্বালানি ব্যবস্থাপনায় দুই ধাপ এগিয়েছে বাংলাদেশ
মার্চ ২৮, ২০১৭ মঙ্গলবার ০৯:৩০ এএম - নিউজ ডেস্ক, এনার্জিনিউজবিডি ডটকম
বিশ্ব জ্বালানি ব্যবস্থাপনা সূচকে দুই ধাপ এগিয়ে ১২৭ দেশের মধ্যে বাংলাদেশ ১০৪ তম স্থানে উঠে এসেছে। গত ২২ মার্চ জেনেভাভিত্তিক ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরাম (ডাব্লিউইএফ)‘এনার্জি আর্কিটেকচার পারফরম্যান্স ইনডেক্স (ইএপিআই) ২০১৭’ শীর্ষক এক প্রতিবেদনে এ তথ্য  প্রকাশ করে।   প্রতিবেদন অনুযায়ী, ২০০৯ সালের পর গত আট বছরে বাংলাদেশের পরিস্থিতির উন্নতি হয়েছে বলে উল্লেখ করা হয়েছে। ইএপিআই সূচকে বিদ্যুতের অবকাঠামোগত  টেকসই অবস্থা, নিরাপদ জ্বালানি ব্যবহার, বিদ্যুৎ বিতরণ ব্যবস্থা, দেশগুলোর বিভিন্ন চ্যালেঞ্জের বিষয় উঠে এসেছে। বাংলাদেশের উন্নতি হয়েছে বিদ্যুত্ ব্যবহার বৃদ্ধিতে, বিকল্প জ্বালানির ব্যবহার, সঞ্চালন ব্যবস্থার উন্নতি, ভর্তুকি হ্রাসসহ বিদ্যুৎ ব্যবহারের মান উন্নতিতে। গত বছরে ১০৬ তম স্থান ছিলো বাংলাদেশ। এবারের প্রতিবেদনে শীর্ষে রয়েছে সুইজারল্যান্ড। সেরা দশে থাকা বাকি দেশগুলো হচ্ছে যথাক্রমে নরওয়ে, সুইডেন, ডেনমার্ক, ফ্রান্স, অস্ট্রিয়া, স্পেন, কলম্বিয়া, নিউজিল্যান্ড এবং উরুগুয়ে। তালিকায় সবচেয়ে বেশি জ্বালানিনির্ভর দেশগুলোর মধ্যে চীন রয়েছে ৯৫তম স্থানে, জাপান ৪৫তম, রাশিয়া ৪৮তম এবং যুক্তরাষ্ট্র ৫২তম অবস্থানে রয়েছে। বাংলাদেশের প্রতিবেশী দেশগুলোর মধ্যে ভারত ৮৭তম, পাকিস্তান ১০১তম,  নেপাল ১১৩তম এবং শ্রীলঙ্কার ৫৯তম অবস্থানে রয়েছে। একটি দেশ তার সামগ্রিক জ্বালানি চাহিদার কতটুকু নিশ্চিত করতে পেরেছে, এর মাধ্যমে অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি ও উন্নয়ন কতটুকু হচ্ছে এবং জ্বালানি ব্যবহারের পাশাপাশি পরিবেশ সুরক্ষা কতটকু করতে পেরেছে—মূলত এ তিনটি মানদণ্ডের মাধ্যমইে দেশগুলোকে মূল্যায়ন করা হয়েছে এ সূচকে। গবেষণা প্রতিবেদনে ১৮টি নিদের্শককে তিন ভাগে মূল্যায়ন করা হয়েছে। এ তিনটি উল্লেখযোগ্য ক্ষেত্রের মধ্যে অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি ও উন্নয়নে বাংলাদেশে পেয়েছে ০.৬৩ পয়েন্ট, পরিবেশগত সক্ষমতা অর্জনে পেয়েছে ০.৪৩ পয়েন্ট এবং জ্বালানি সুবিধা ও নিরাপত্তা সূচকে পেয়েছে ০.৪৬ পয়েন্ট। এতে বলা হয়, গত ২০০৯ থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত আট বছরে বাংলাদেশের অগ্রগতি হয়েছে ৯ ধাপ। এ বছর জ্বালানি ব্যবস্থাপনা সূচকে বাংলাদেশের সার্বিক স্কোর ০.৫১ পয়েন্ট। যা গত বছর ছিল ০.৫০ পয়েন্ট। প্রতিবেদনে ১৮টি সূচকের মধ্যে আটটিতে বাংলাদেশের অগ্রগতি হচ্ছে, বাকিগুলোতে হয় অবনতি, না হয় স্থির অবস্থায় রয়েছে। এতে দেখা যায়, বিদ্যুতায়নের দিক থেকে বিশ্বে বাংলাদেশের অবস্থান ১০৭তম। প্রাপ্ত স্কোর ৫৯.৬০ পয়েন্ট। বলা হয়, বাংলাদেশ এতে পিছিয়ে থাকলেও বর্তমানে ভালো অগ্রগতি অর্জন করছে। বিকল্প এবং পরমাণু জ্বালানি ব্যবহারের দিক থেকেও বাংলাদেশ ৫৯তম অবস্থানে রয়েছে। এ ক্ষেত্রেও অগ্রগতি আশানুরূপ। তবে বিদ্যুৎ উৎপাদন থেকে কার্বন নির্গমনের পরিমাণ কমছে না। এ ক্ষেত্রে বৈশ্বিক অবস্থান ৯২তম। প্রতিবেদনে বলা হয়, এশিয়ায় বেশ কিছু দেশের অর্থনৈতিক উত্থান বিশ্বজুড়ে জ্বালানি চাহিদা বাড়িয়েছে। ২০১৪ সালে ৩৫ শতাংশ জ্বালানি বাণিজ্য হয় এশিয়ার দেশগুলোর সঙ্গে। যা ২০০৪ সালের চেয়ে বেশি। অন্যদিকে জ্বালানি চাহিদার জোগানও বেড়েছে। উত্তর আমেরিকার দেশগুলোতে অগতানুগতিক তেলের উৎপাদন  বিশ্ববাজারে প্রতিদিন যোগ করছে ৮০ লাখ ব্যারেল করে।    
ক্যাটাগরি: অন্যান্য
বাংলাদেশে জ্বালানির প্রাপ্যতা নিয়ে বেইজলাইন সার্ভে করবে মাইডাস
মার্চ ২৭, ২০১৭ সোমবার ১১:২০ পিএম - স্টাফ করেসপনডেন্ট, এনার্জিনিউজবিডি ডটকম
বেসরকারি খাতের প্রমোশনাল প্রতিষ্ঠান মাইক্রো ইন্ডাস্ট্রিজ ডেভেলপমেন্ট অ্যাসিসটেন্স অ্যান্ড সার্ভিসেস (মাইডাস) বাংলাদেশে জ্বালানির প্রাপ্যতা নিয়ে বৈশ্বিক বহু স্তর পদ্ধতিতে একটি বেইজলাইন সার্ভে পরিচালনা করবে। বিশ্বব্যাংকের অর্থায়নে বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো এ ধরনের সার্ভে হবে। সোমবার ঢাকায় বিদ্যুৎ খাতের নীতি-নির্ধারণী সংস্থা পাওয়ার সেলের মহাপরিচালক মোহাম্মদ হোসেন এবং মাইডাস এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ড. এ এস এম মশিউর রহমান নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানের পক্ষে এ সংক্রান্ত একটি চুক্তিতে সই করেন। অনুষ্ঠানে পাওয়ার সেলের পরিচালক মোহাম্মদ আমজাদ হোসেন, মাইডাসের সিনিয়র জেনারেল ম্যানেজার জিয়াউল মুকিত ও সহকারী জেনারেল ম্যানেজার মো. ইব্রাহিম হোসেন উপস্থিত ছিলেন।  
ক্যাটাগরি: অন্যান্য
    সাম্প্রতিক অন্যান্য এর খবর
বিশ্ব জ্বালানি ব্যবস্থাপনায় দুই ধাপ এগিয়েছে বাংলাদেশ
বাংলাদেশে জ্বালানির প্রাপ্যতা নিয়ে বেইজলাইন সার্ভে করবে মাইডাস
‘১ আইডিয়াতে বাজিমাত’ প্রতিযোগিতায় প্রথম পুরস্কার পেল ফজলে ইলাহী
‘বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে দ্বিতীয় জ্বালানি সংলাপ অনুষ্ঠিত’
এনার্জি রেগুলেটরি কমিশনে নতুন চেয়ারম্যানসহ তিনজন সদস্য নিয়োগ দিয়েছে সরকার
পরমাণু শক্তি কমিশনের নতুন চেয়ারম্যান প্রকৌশলী মঞ্জুরুল হক
বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী ফেসবুক লাইভে আসছেন বৃহস্পতিবার, যোগ দিন আপনিও
বড়পুকুরিয়া কোল মাইনিং কোম্পানীর নতুন ব্যবস্থাপনা পরিচালক হাবিব উদ্দিন
রামপালে কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণের দাবিতে মানববন্ধন
বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতের বিরোধ নিষ্পত্তি করবে বিইআরসি ট্রাইব্যুনাল
‘আগামীতে বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতে নিজস্ব অর্থায়নে উন্নয়ন প্রকল্প নেয়ার উদ্যোগ’
স্রেডার নতুন চেয়ারম্যান হেলাল উদ্দিন
ব্লু ইকোনমি সেলের যাত্রা শুরু
পেট্রোবাংলার নতুন চেয়ারম্যান আবুল মনসুর মো. ফয়জুল্লাহ
বিপিসি’র নতুন চেয়ারম্যান রহমাতুল মুনিম
বিদ্যুৎ বিভাগের নতুন সচিব ড. আহমদ কায়কাউস
‘শেষ হলো চার দিনব্যাপি বিদ্যুৎ ও জ্বালানি সপ্তাহ’
জাতীয় বিদ্যুৎ ও জ্বালানি সপ্তাহের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী
চার দিনব্যাপি জাতীয় বিদ্যুৎ ও জ্বালানি সপ্তাহ শুরু বুধবার
‘গ্যাস বাংলাদেশ’ এবং ‘কোল বাংলাদেশ’ বইয়ের মোড়ক উম্মোচন
জ্বালানির সাশ্রয়ী ব্যবহারে উদ্বুদ্ধ করতে স্কাউটদের মাধ্যমে সামাজিক আন্দোলন আরো গতিশীল করতে হবে
পেট্রোবাংলার নতুন পরিচালক হলেন মাহবুব ছারোয়ার, তিন কোম্পানীর ব্যবস্থাপনা পরিচালক পদে রদবদল
১৭ থেকে ১৯ নভেম্বর জাতীয় বিদ্যুৎ ও জ্বালানি সপ্তাহ পালন হবে
আগামী ৩ বছরের মধ্যে বিদ্যুতের প্রিপেইড মিটার স্থাপন সম্পন্ন করার সুপারিশ সংসদীয় কমিটির
‘২০২২ সাল নাগাদ কয়লা থেকে ৫০ শতাংশ বিদ্যুৎ উৎপাদিত হবে’
জাতীয় উন্নয়নে গ্যাস ও বিদ্যুতের ব্যবহার নিশ্চিত করতে রাষ্ট্রপতির গুরুত্বারোপ
বিআইএফপিসিএল ভারতেও ৭৫০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণ করবে
বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে জ্বালানি খাতের বিভিন্ন ইস্যু নিয়ে আলোচনা হচ্ছে বুধবার
বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতের গবেষণায় ইপিআরসি ও এসাব এর সমঝোতা স্মারক সই
    FOLLOW US ON FACEBOOK


Explore the energynewsbd.com
হোম
এনার্জি ওয়ার্ল্ড
মতামত
পরিবেশ
অন্যান্য
এনার্জি বিডি
গ্রীণ এনার্জি
সাক্ষাৎকার
বিজনেস
আর্কাইভ
About Us Contact Us Terms & Conditions Privacy Policy Advertisement Policy

   Editor & Publisher: Aminur Rahman
   Copyright @ 2015-2018 energynewsbd.com
   All Rights Reserved | Developed By: Jadukor IT